আজ রোববার (০৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। টিকাদান কর্মসূচির প্রথম দিনে দেশের বিভিন্ন জেলার ৯৫৫টি হাসপাতালে টিকা দেওয়া হবে। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে মোট দুই হাজার ১৯৬টি দল কাজ করছে। শনিবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত মোট তিন লাখ ২৮ হাজার ১৩ জন ভ্যাকসিন নিতে অনলাইনে নিবন্ধন করেছেন।

সারাদেশের ন্যায় বরিশালেও করোনা টিকা দেয়ার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিকভাবে আজ সকাল ১০টায় এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। বরিশাল শের-ই- বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিসিসি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন। করোনা ভ্যাকসিন গ্রহনে বরিশালের মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোঃ বাকির হোসেন সর্বপ্রথম নিজ শরীরে ভ্যাকসিন পুশ করান।

বরিশাল বিভাগের ৬ জেলার ৪২টি উপজেলায় ১৩১টি বুথে চলছে টিকাদান কর্মসূচি। ইতোমধ্যে বরিশাল বিভাগে এক হাজার ৭৬৭ জন রেজিস্ট্রেশন করেছেন। বাকেরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বরিশাল বিভাগের টিকাদান কর্মসূচির উদ্ধোধন করেন সংসদ সদস্য নাসরীন জাহান রত্না।

ফ্রন্ট লাইনার হিসেবে যারা করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করেন তারা হলেন, শেবাচিম কলেজ’র অধ্যক্ষ ডাঃ মনিরুজ্জামান শাহীন, সিভিল সার্জন ডাঃ মনোয়ার হোসেন, শেবাচিম’র উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ জসিম উদ্দীন (৫৮), স্বাস্থ্যবিভাগের সহকারী পরিচালক সন্ধা রানী (৫৬), সেবা তত্তাবধায়ক (নার্স) সেলিনা আক্তার (৫৭), সিনিয়র নার্স সাইফুল ইসলাম (৩০) সহ সেবিকা ও সাধারণ জনগন।

ভ্যাক্সিন কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বিসিসি মেয়র সেরনিয়াবিত সাদিক আব্দুল্লাহ বিভাগীয় শহর বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে করোনা ভ্যাক্সিন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পাঠানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ভ্যাক্সিন নিতে আগ্রহীদের মেয়র বিসিসির অতিসত্তর নিবন্ধন করতে সকলকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

ভ্যাক্সিন গ্রহনের পর অনুভূতি জানতে চাইলে শেবাচিমের পরিচালক ডাঃ বাকির হোসেন জানান, করোনাকালীন সময়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা বাংলাদেশের ন্যায় বরিশাল শেবাচিমের ডাক্তার, নার্স নিজ জীবনের ঝুকি নিয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্রায় ১ বছর ধরে সেবা করে যাচ্ছে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা ভ্যাক্সিন দেশে আমদানি করার পরে চিকিৎসক ও সেবিকাদের অগ্রাধিকার দেওয়ায় তাকে ধন্যবাদ জানান। শেবাচিমের সকল চিকিৎসক ও নার্সসহ- সাধারণ মানুষকে উৎসাহ প্রদান করতে তিনি প্রথমে নিজ শরীরে এই ভ্যাক্সিন পুশ করিয়েছেন। ভ্যক্সিন নেওয়ার পরে তার কোন পার্শ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here