বরিশাল রাজনীতির মাঠে পুরোদমে সক্রিয় নগরীর ২৮ নং ওয়ার্ড আ’লীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ জগলুল মোর্শেদ প্রিন্স। স্থানীয় রাজনীতির মাঠে তাকে অনেকে নতুন মুখ বলে মনে করলেও তিনি আ’লীগ এর আদর্শ বুকে ধারন করে বিগত দিনে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে ২৮ নং ওয়ার্ড আ’লীগ তথা সাধারন গরীব দুঃখী মানুষের মাঝে ব্যাপক আলোরন সৃষ্টি করেছেন।দিনে দিনে নিজেকে করেছেন আরও পরিনত এবং ওয়ার্ড আ’লীগ এর কান্ডারী ও সাধারন মানুষের আস্থার প্রতিক।

এ বিষয়ে মোঃ জগলুল মোর্শেদ প্রিন্স বলেন , আমার রাজনৈতিক অভিভাবক ও নেতা মহানগর আ’লীগ এর সাধারন সম্পাদক ও বিসিসি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ ২৮ নং ওয়ার্ড আ’লীগ সাধারন সম্পাদক এর মতন গুরুত্বপুর্ন দায়িত্ব আমাকে প্রদান করেছেন যা আমি আমার নেতার দিকনির্দেশনা মেনে অক্ষরে অক্ষরে পালনের চেষ্টা করছি। মহানগর আ’লীগ ও আমার নেতা সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র একজন কর্মি হিসেবে নিজেকে তৈরী করার চেষ্ঠা করছি।

উল্লেখ্য কয়েক মাস পূর্বে একটি ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন বলে দাবী ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জগলুল মোর্শেদ প্রিন্সের। স্থানীয় রাজনীতিতে তার সাফল্য ও মহানগর আ’লীগ এর সাধারন সম্পাদক ও বিসিসি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র আস্থাভাজন হয়ে ওঠায় একটি কুচুক্রি মহল তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়ে সুনাম ক্ষুন্ন করায় রাজনীতির মাঠে কিছুদিন সাময়িক ভাবে কোনঠাসা থাকলেও করোনা মহামারীর সময় সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র নীতি অনুসরন করে ওয়ার্ডের গরীব দুঃখী অসহায় মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নিজ অর্থায়নে ও সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র পক্ষ থেকে সহায়তা করে ব্যপক ভালবাসা অর্জন করেন।

এসময় নিজেকে আলোচনায় নিয়ে আসেন প্রিন্স। ওয়ার্ড আ’লীগের কোনঠাসা অনেক নেতা বিকল্প একটি মঞ্চ তৈরির বারবার উদ্যোগ নিয়ে হোচট খাওয়ার পর জগলুল মোর্শেদ প্রিন্সকে এখন যুৎসই মনে করছে। কিন্তু প্রিন্স বিভাজনের রাজনীতি এড়িয়ে কিভাবে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র হাতকে শক্তিশালী করতে নিজেস্ব আঙ্গিকে স্থানীয়ভাবে আ’লীগকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যাবেন এবিষয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ বক্তব্য দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here